২৯ সেপ্টেম্বর, ১৯৭১

aamra
Comments Off on ২৯ সেপ্টেম্বর, ১৯৭১
  • ময়মনসিংহে মুক্তিবাহিনী কোম্পানি কমান্ডার আবুল কাশেম ও প্লাটুন কমান্ডার মনিরুদ্দিনের নেতৃত্বে পাকবাহিনীর ভালুকা ঘাঁটির ওপর আক্রমণ চালায়। এই আক্রমণে ৪ জন পাকসেনা ও ৩ জন রাজাকার নিহত হয়।
  • ২নং সেক্টরে মুক্তিবাহিনীর ৪র্থ বেঙ্গলের ‘বি’ কোম্পানি পাকসেনাদের নয়ানপুর অবস্থানের ওপর অতর্কিতে আক্রমণ চালায়। এই আক্রমণে গোলন্দাজ বাহিনী মুক্তিযোদ্ধাদের সহায়তা করে।
  • পাকিস্তান সরকার জাতিসংঘে বাংলাদেশ সরকারের প্রতিনিধি এম.আর. সিদ্দিকীর জাতিসংঘের অঙ্গনে প্রবেশ নিষিদ্ধ করার জন্যে মহাসচিব উ’থান্টের কাছে আবেদন জানায়।
  • বিচারপতি আবু সাঈদ চৌধুরীর কাছে বৃটিশ লেবার পার্টির সচিব টিম রিড আউট এক চিঠিতে অক্টোবরে অনুষ্ঠেয় দলের সম্মেলনে যোগদানের জন্য তাকে অনুরোধ জানান।
  • রাওয়ালপিন্ডিতে সরকারিবাবে ঘোষণা করা হয়, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার অভিযোগে অভিযুক্ত অধুনালুপ্ত আওয়ামী লীগ প্রধান শেখ মুজিবুর রহমানের বিরুদ্ধে বিশেষ আদালতে দায়েরকৃত মামলায় এ পর্যন্ত ২০ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য নেয়া হয়েছে।
  • উপ-নির্বাচনকে সামনে রেখে কেএসসি’র ওয়ার্কি কমিটি এক জুরুরি বৈঠকে জয়নুল আবেদীন, এম. এ. হাই, এম.এ.রব, নিজামুদ্দিন মোল্লা ও শাহমহিউদ্দীনকে নিয়ে একটি সাব-কমিটি গঠন করে।
  • সেক্রেটারিয়েট কেবিনেট কক্ষে ডা. মালিকের সভাপতিত্বে মন্ত্রীপরিষদের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে মন্ত্রীরা যুদ্ধকালীন কৃচ্ছতা ও দেশপ্রেম দেখাতে তাদের বেতন ৫ থেকে ১০ ভাগ কমানোর সিদ্ধান্ত নেন।
  • শান্তি কমিটি দিলকুশা ইউনিয়ন শাখা কার্জন হলে মন্ত্রীদের সম্বর্ধনা দেয়। গোলাম আযমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় শাসুল হক বলেন, ভারতের দুরভিসন্ধি ফাঁস হয়ে যাবে ভেবেই তারা জাতিসংঘ, রেডক্রস, সাংবাদিক এবং মানবতাবাদীদের দেশে ঢুকতে দিচ্ছে না।